July 20, 2016

বোধোদয়ঃ হোক শুরু



রওশন বলেন, “যখন ব্লগার মারা হল তখন তো আমরা গোড়া খুঁজতে যাইনি, গুরুত্ব দিইনি। আমরা ডেপথে চিন্তা করি না। সবকিছু ভাসাভাসা দেখি।” - যাক, রওশন এরশাদ কিছুটা আঁচ পাচ্ছেন

আমার ব্লগ জীবন খুবই ছোটো, মাত্র সেদিন, ২০০৬ থেকে শুরু হয়েছিলো। সেই সময় থেকেই দেখছি, বারংবার বলা  হয়েছে, ধর্মভিত্তিক রাজনীতি দেশকে ধ্বংসের পথে নেবে একদিন, লাভ হয়নি। উল্টো গালি জুটেছে। বাকস্বাধীনতার ধুঁয়ো তুলে এইসব এক্সট্রিমিস্ট জংগীদের ফিউচার ব্রিডিং ফিল্ড তৈরী করে দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই না, ২০১৩ সালে, শাহবাগ আপরাইজিং এর সময়টাতে আমাদের গনহারে নাস্তিক ও ইসলাম বিদ্বেসী খেতাব দিয়ে রাজীবকে দিয়ে শুরু হয়েছে খুনের উৎসব। এই নিরিহ ৮৪টি মানুষকে ফাঁসি দিতে লক্ষ-লক্ষ উগ্র সমর্থক সারা বাংলার স্থানে স্থানে মহড়া দিয়েছে, ঢাকা অচল করে দিয়েছে হেফাজত-এ-ইসলাম। সেসময় কি করেনি তারা? ভাংচুর-আগুন দেওয়া-সাংবাদিক মহিলাকে পেটানো, এমনকি আপনাদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ "কোরান"ও পুড়িয়েছে এই ইসলামের সৈনিকেরা!

সে সময়টাতে নিরাপত্তাহীনতার আবেদন জানালে পুলিশ যা আচরন করেছে তাতে স্পষ্টই বুঝেছি, আমরা আসলে "ওপেন-সীজন" ঘোষনার স্বীকার হয়ে গেছি সরকারীভাবেই - একটা করে খুন হবে, কয়েকদিন পত্রিকায় আসবে, পুলিশ জানাবে ধরে ফেলবো, কখনো কখনো জনতা ধরে দেবে খুনি, সেইখুনি আবার জামিনে মুক্তি পেয়ে পালাবে অস্ট্রেলিয়ার মতন দেশে, প্রতিমন্ত্রীর ভাগ্নে হবার সুবাদে। ধরাপড়া খুনি হাটহাজারী মাদ্রাসার "বড় হুজুর" এর আদেশ এর কথা জানালেও সেই হাঠাজারী গং সরকারী ভাবে ৩২ কোটি টাকার রেলের সম্পত্তি জমি বরাদ্দ পাবে জংগী উৎপাদন কারখানা সম্প্রসারে।

আর আমরা, কপালে "ছিল" মেরে দেওয়া ব্লগার আর একটিভিস্টরা চাকরী-ব্যাবসা ছেড়ে, মধ্যবিত্বের শেষ সঞ্চয় খুঁদ-কুঁড়ো ভাঙবো সংসার চালাতে, ঘর-সংসার-মা-বৌ-বাচ্চা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াবো নিরাপত্তার খোঁজে।

ওরা আমাদের মেরেছে, খুন করতে শিখেছে প্রাক্টিক্যালি। এরপর বিচ্ছিন্ন ভাবে বিদেশি-হিন্দু সেবায়েত মেরে শিখেছে গেরিলা পদ্ধতিতে টার্গেট কিলিং এবং এসকেপ। এরপর ঘটেছে গুলশান ম্যাসাকার আর শোলাকিয়া হামলা। আপনারাও টার্গেট হবেন, হে মহামাণ্য রাজনীতিবিদগন, হয়তো অদূর ভবিষ্যতেই। জংগী ঘাঁটি থেকে উদ্ধার হওয়া অত্যাধুনিক এমকে-১১ স্নাইপার রাইফেল আর সেনাবাহিনীর মেজরের ইউনিফর্ম - এগুলো ঠিক সাধারন কোনো নিরিহ মানুষ মারতে বা দু'চারটে বাস পুড়িয়ে, বোমাবাজী করে আতংক ছড়াতে ব্যাবহৃত হবে সেটা ভেবে বসে থাকলে পস্তাবেন।

আজ আপনার বোধোদয় হলো, শুরু হোক অন্যদেরও।

Disqus for Simple thoughts...