March 21, 2018

গাজী রাকায়েত-নামা ১


গাজী রাকায়েত এর বিষয়ে অভিযোগটা অনেকদিনেরই এবং অনেকেরই, ফেসবুকে মেয়েদেরকে সেক্সুয়াল এবিউজমূলক এগ্রেসিভ আচরন করা। সেদিন এক মেয়ে কিছু ইনবক্স এর কিছু স্ক্রীনশট শেয়ার করে একটা ক্লোজড মেয়েদের গ্রুপে, সেখান থেকে স্ক্রীনশটগুলি নিয়ে অনেকেই ঘটনার বিচার দাবি করেন। এদের মধ্যে একজন অপরাজিতা সঙ্গীতা
এর পরে গাজী রাকায়েত তার আরেকটি ফেসবুক আইডি থেকে জানায়, তার একাধিক আইডি আছে এবং ঐ নির্দিষ্ট আইডিটি হ্যাক হয়েছিল। আরেক স্থানে জানায় তার ফেসবুকের পাসওয়র্ড তার বাসার কাজের ছেলে জানে এবং কান্ডটি সেই ঘটিয়েছে, আবার আরেক স্থানে গাজী রাকায়েত এর বক্তব্য অনুসারে তার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড তার ছাত্র ও পরিচিতজনসহ ৫/৬ জনের কাছে ছিল, তারাই এই কুকান্ড ঘটিয়েছে।
হ্যাক হতেই পারে, তাই তাকে বেনিফিট অব ডাউট দিতে আপস-মীমাংসার চেষ্টায় শিল্পী সমিতি, প্রযোজক সমিতি এবং ডিরেক্টরস গিল্ড নামে নাট্যজগতের তিন সংগঠনের নেতারা অভিযোগকারীর প্রতিনিধিদের সঙ্গে রাজধানীর নিকেতনে আলোচনায় বসে। অথচ এরপরেই জানা যায়, লম্পট গাজী রাকায়েত গোপনে আইসিটি আইনের ৫৭ ধারায় (জামিন অযোগ্য) উল্টো প্রতিবাদকারী অপরাজিতা সঙ্গীতার নামেই চুপি চুপি মামলা ঠুকেছে!
কে বা কারা হ্যাক করেছিল তা তদন্তের জন্য গাজী রাকায়েত আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাহায্য নিতে পারত, বিষয়টা ওপরে বলা আপস-মীমাংসায় রফা হতে পারত | অথচ, গাজী রাকায়েত হ্যাকারকে না খুজে সেইসব স্কিনশট প্রকাশের দায়ে উল্টো সঙ্গীতার নামে আইসিটি এক্টের ৫৭ ধারায় মামলা করল!
এখন সে যৌন হয়রানির কথা যেই নারী প্রকাশ করেছেন তাঁর নামে বিতর্কিত ৫৭ ধারায় মামলা করায় এখন বুঝতে বাকি নেই কুকান্ডটা গাজী রাকায়েতই করেছে।
পাঠক যাস্ট এটুকুই ভাবুন, আপনার কন্যা বা বোনকে কেউ ফেসবুকে ইনবক্স করে আবদার জুড়ে দেবে যৌনাংগ দেখাবার আর সেটা মেনেও নিতে হবে, কারন প্রতিবাদ করলে পাল্টা যামিন অযোগ্য বিতর্কিত কালা কানুনের মামলা খাবে সে! চমৎকার না?
লেখার সাথে আরিফ জেবতিকের ফেসবুক পোস্ট সংযুক্ত করা হলো।



Disqus for Simple thoughts...